রংপুরে রাঙ্গার মেয়ের প্রাইভেট কারে অটোচালকসহ আহত-০৩ ,আশংকাজনক ০১ জন

    0
    155

    রংপুরঃ রংপুর নগরীর গুঞ্জণ মোড় এলাকায় জাপা মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গার মেয়ে মালিহা তাসলিম জুঁইর প্রাইভেট কারের চাপায় এক অটোরিকশা ও মোটরসাইকেলের আরোহীসহ তিন জন আহত হয়েছে। এর মধ্যে অটোচালকের অবস্থা আশঙ্কাজনক। রোববার (৭ জুন) রাত দশটার দিকে নগরীর গুঞ্জন মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে।
    আহতরা হলেন বৈরাগীপাড়ার নিবারমের পুত্র অটোচালক বিশু, সাথমাথার ফজলে করিমের পুত্র লিমন (২১), ও কামাল কাছনার সাহাবুদ্দিনের পুত্র আলাউদ্দিন (৩৮)
    প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রোববার (৭ জুন) রাত ১০টার দিকে নেভিব্লু কালারের একটি প্রাইভেট কার চালিয়ে যাবার সময় নিয়ন্ত্রনণ হারিয়ে একটি অটোরিকশা ও একটি মোটরসাইকেলকে সজোরে ধাক্কা দিলে অটোরিকশা চালক ও মোটরসাইকেলের তিনজন অারোহী গুরুত্বর অাহত হয়। ঘটনাস্থলে উপস্থিত লোকজন তাদের উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেলে পাঠায়। বিক্ষূব্ধ এলাকাবাসী প্রাইভেট কারটি ঘেরাও ও রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে। এ সময় রাঙ্গা কন্যাকে অবরুদ্ধ করে উত্তেজিত এলাকাবাসী। এতে কয়েকজন চালকসহ গাড়িটি উদ্ধারের চেষ্টা করলে ধাওয়া-পাল্টার দুই পক্ষের বাকবিতন্ডা লেগে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে প্রায় এক ঘন্টা চেষ্টার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অানে।

    এ বিষয়ে মেট্টোপলিটন কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক এরশাদ অালী বলেন, মশিউর রহমান রাঙ্গার মেয়েকে উদ্ধার করে বাসায় পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

    এমন্ত অবস্থায় রংপুর মহানগর ছাত্রলীগের সাংগঠনিক শাহজাহানুর ইসলাম সৌরভ,ঘটনা স্থানে পৌছায়,এবং লাইভে এসে আহতদের কাছে ঘটনাটি শুনে,অতপর মশিউর রহমান রাঙ্গা এর সন্ত্রাস বাহিনী ছাত্রনেতা সৌরভ এর উপর অতর্কিত হামলা করে এবং যখনই ধারালো অস্ত্র বের করে তখন ছাত্রনেতা সৌরভ নিজের জীবন বাচানোর তাগিদে ১৫ নং ওয়ার্ড এর নার্চ এর ডিউটি রুমে প্রবেশ করেন,এমন্ত অবস্থায় সন্ত্রাসী বাহিনী উক্ত দরজায় লাথি মারে খুলে ফেলে অতপর সৌরভ ওয়াশ রুমে ঢুকে এবং সৌরভ কে মেরে ফেলার হুমকি দেতে থাকে,সৌরভ জীবন বাচানোর জন্য, ওয়াশ রুমের ভেন্টিলেটর দিয়ে ৩ তলায় লাফ দেয়।
    গুরুতর আহত হয় সে এখন রংপুর মেডিকেল ৩ তলায় 31 নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তিরত।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here